কবিতা

আমাদের ছোট নদী কবিতা

সম্মানিত পাঠক আপনাদের সবাইকে অনেক অনেক আন্তরিক শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন জানিয়ে শুরু করছি আমাদের আজকের আলোচনা। আজকের আলোচনায় আমরা আপনাদের মাঝে নিয়ে এসেছি আমাদের ছোট নদী কবিতাটি। কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি বিখ্যাত কবিতা হচ্ছে আমাদের ছোট নদী। এই কবিতাটি মূলত কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ছোটদের উদ্দেশ্যে লিখেছেন। এই কবিতাটির মাধ্যমে আমরা গ্রাম বাংলার বৈচিত্র্য সম্পর্কে জানতে পারি এবং সেই সাথে গ্রামীন জীবন উপলব্ধি করতে পারি। তাইতো অনেকেই গ্রাম বাংলার সোনালী দিনের কথা ভেবে অনলাইনে আমাদের ছোট নদী কবিতাটি অনুসন্ধান করে থাকেন। তাদের উদ্দেশ্যে আমরা আজকে আমাদের ছোট নদী কবিতাটি তুলে ধরেছি। আপনি আমাদের আজকের এই আমাদের ছোট নদী কবিতা সংগ্রহ করার মাধ্যমে গ্রামীন জীবনের বৈচিত্র্যময় জীবনধারা জানতে পারবেন এবং তা উপলব্ধি করতে পারবেন।

কবিতা মূলত মনের ভাব প্রকাশের অন্যতম একটি মাধ্যম যার মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানতে পারি। প্রতিটি কবি ও সাহিত্যিকগণ কবিতা লেখার জন্য ছোট ছোট ছন্দ গুলোর ব্যবহার করে থাকেন এবং যেগুলোর মাধ্যমে একজন কবি নিজের সকল ধরনের অনুভূতি ভালো লাগা মন্দলাগা ও বিভিন্ন ধরনের চিন্তাশক্তি এছাড়া বিভিন্ন সম্পর্কে সকল তথ্য আমাদের মাঝে তুলে ধরেন। বাস্তব জীবনে এই কবিতা গুলো আমাদেরকে প্রকৃতির বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানতে সাহায্য করে এবং প্রাচীন জীবনধারার পরিচয় আমরা এই কবিতাগুলো থেকে পেয়ে থাকি।

প্রাচীনকালের গ্রামীণ জীবনধারা সম্পর্কে আমরা আমাদের ছোট নদী কবিতাটির মাধ্যমে জানতে পারি। যেটি বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তারা অসংখ্য কবিতার মধ্যে অন্যতম একটি কবিতা। এই কবিতাটির মাধ্যমে গ্রাম বাংলার সকল বৈচিত্রময় জীবনধারার পরিচয় তুলে ধরা হয়েছে এবং বাংলার প্রকৃতির নদী অপরূপ সৌন্দর্য তুলে ধরা হয়েছে।

আমাদের ছোট নদী কবিতা

অনেকে অনলাইনে আমাদের ছোট নদী কবিতাটি অনুসন্ধান করে থাকেন। তাদেরকে জানাতে আজকে আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়ে এসেছি আমরা আমাদের ছোট নদী কবিতাটি। আপনি আমাদের আজকের এই পোস্ট থেকে কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের আমাদের ছোট নদী কবিতাটি সংগ্রহ করতে পারবেন এবং ব্যক্তিগত জীবনে আপনি প্রাচীন গ্রাম বাংলার অপরূপ সৌন্দর্য এবং প্রকৃতির নদী বৈচিত্রের সৌন্দর্য সহজেই উপলব্ধি করতে পারবেন। কেননা আমাদের ছোট নদী কবিতাটিতে গ্রাম বাংলার সেই স্পষ্ট সৌন্দর্যের বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে। আপনি আজকের কবিতাটির মাধ্যমে নিজের গ্রামের সৌন্দর্য উপলব্ধি করতে পারবেন এবং অন্যকে গ্রামীণ সৌন্দর্য সম্পর্কে জানাতে আমাদের এই কবিতাটি শেয়ার করে দিতে পারবেন। নিচে আপনাদের উদ্দেশ্যে আমাদের ছোট নদী কবিতাটি তুলে ধরা হলো:

আমাদের ছোটো নদী চলে বাঁকে বাঁকে
বৈশাখ মাসে তার হাঁটু জল থাকে।
পার হয়ে যায় গোরু, পার হয় গাড়ি,
দুই ধার উঁচু তার, ঢালু তার পাড়ি।

চিক্ চিক্ করে বালি, কোথা নাই কাদা,
একধারে কাশবন ফুলে ফুলে সাদা।
কিচিমিচি করে সেথা শালিকের ঝাঁক,
রাতে ওঠে থেকে থেকে শেয়ালের হাঁক।

আর-পারে আমবন তালবন চলে,
গাঁয়ের বামুন পাড়া তারি ছায়াতলে।
তীরে তীরে ছেলে মেয়ে নাইবার কালে
গামছায় জল ভরি গায়ে তারা ঢালে।

সকালে বিকালে কভু নাওয়া হলে পরে
আঁচল ছাঁকিয়া তারা ছোটো মাছ ধরে।
বালি দিয়ে মাজে থালা, ঘটিগুলি মাজে,
বধূরা কাপড় কেচে যায় গৃহকাজে।

আষাঢ়ে বাদল নামে, নদী ভর ভর
মাতিয়া ছুটিয়া চলে ধারা খরতর।
মহাবেগে কলকল কোলাহল ওঠে,
ঘোলা জলে পাকগুলি ঘুরে ঘুরে ছোটে।
দুই কূলে বনে বনে পড়ে যায় সাড়া,
বরষার উৎসবে জেগে ওঠে পাড়া।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button